আজ | বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯
Search

চৌদ্দ দলের জবাব দেব: মেনন

৯:৪৯ অপরাহ্ন, ২৫ অক্টোবর, ২০১৯

chahida-news-1572018593.jpg
ফাইল ছবি

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে ব্যাপক আলোচনার জন্ম দেওয়া নিজের মন্তব্যের বিষয়ে শিগগিরই ১৪ দলীয় জোটের কাছে ব্যাখ্যা দেবেন বলে জানিয়েছেন ওয়ার্কাস পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন।

ওই বক্তব্যের বিষয়ে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন এই জোটের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম চিঠি পাঠানোর পরদিন শুক্রবার তিনি একথা জানান। মেনন বলেন, “আমার কাছে ১৪ দলের একটি চিঠি এসেছে। আমি এর জবাব শিগগিরই দেব।”

গত শনিবার বরিশালে ওয়ার্কার্স পার্টির এক সভায় দলটির সভাপতি বলেন, “আমিও নির্বাচিত হয়েছি। তারপরও আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি, ওই নির্বাচনে জনগণ ভোট দিতে পারেনি। এমনকি পরবর্তীতে উপজেলা এবং ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনেও ভোট দিতে পারেনি দেশের মানুষ।”

মহাজোট সরকারের সাবেক মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের দীর্ঘদিনের জোটসঙ্গী একটি রাজনৈতিক দলের নেতার মুখ থেকে একাদশ সংসদ নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করে এমন বক্তব্য নিয়ে স্বভাবতই বাংলাদেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে তুমুল আলোচনা শুরু হয়।

মেননের ওই বক্তব্যকে লুফে নিয়ে নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ করে আসা বিরোধী জোট এটাকে প্রমাণ হিসেবে হাজির করে ক্ষমতাসীন দলের জোটসঙ্গী এই নেতাকে ‘রাজসাক্ষী’ হিসেবে বর্ণনা করছে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মন্ত্রীত্ব না পাওয়ার বেদনা থেকে মেনন ওই বক্তব্য দিতে পারেন।

বাম দল ওয়ার্কার্স পার্টি গত এক যুগ ধরে আওয়ামী লীগের সঙ্গে ১৪ দলীয় জোটে রয়েছে। জোটের প্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক নিয়ে গত তিনটি নির্বাচনে বিজয়ী হন মেনন। এক দফায় মন্ত্রীও ছিলেন তিনি।

১৪ দলীয় জোটের মুখপাত্র নাসিম বলেছেন, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতির ‘দায়িত্বহীন’ ওই বক্তব্যের সঙ্গে জোটের কোনো সম্পর্ক নেই।

তবে মেনন এক বিবৃতিতে বলেছেন, তার বক্তব্য সম্পূর্ণ উপস্থাপন না করে অংশ বিশেষ উত্থাপন করায় ‘জাতীয় রাজনীতি ও ১৪ দলের রাজনীতিতে একটা ভুল বার্তা গেছে’।

বৃহস্পতিবার রাতে নাসিমের ধানমল্ডির বাসায় ১৪ দলের বৈঠকে চিঠি দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। রাতেই মেননের কাছে নাসিমের স্বাক্ষরিত চিঠিটি পাঠানো হয়।

গত শনিবার বরিশালে জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সম্মেলনে নির্বাচন নিয়ে যে বক্তব্য দেন ‘সেটা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়’ বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

  

আপনার মন্তব্য লিখুন