আজ | শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০
Search

জঙ্গি হামলার শঙ্কায় সতর্কতা

চাহিদা নিউজ ডেস্ক | ৫:৩৯ অপরাহ্ন, ২৭ জুলাই, ২০২০

chahida-news-1595849993.jpg

বাংলাদেশে হত্যাকাণ্ড, নাশকতা এবং ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করার পাঁয়তারা করছে জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) আদলে গঠিত নব্য জেএমবি সদস্যরা। এমন আগাম তথ্য পেয়ে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স থেকে একটি চিঠি দিয়ে সব ইউনিটকে সতর্ক করা হয়েছে।

সোমবার (২৭ জুলাই) সকালে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানা এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, দেশে জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তারপরও দেশ ও জনগণের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আমরা কোনো ধরনের আশঙ্কা রাখতে চাই না। তারই অংশ হিসাবে বিভিন্ন উৎসবের আগে এসব সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিষয়ে বিভিন্ন ধরনের তথ্য পাওয়া যায়। এবারও সে ধরনের তথ্য পেয়ে আমরা পুলিশের প্রতিটি ইউনিটকে আগাম প্রস্তুতি হিসাবে সতর্ক থাকতে বলেছি।

পুলিশ সদর দফতরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি অপারেশসন) তারিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত সম্প্রতি দেওয়া চিঠিতে বলা হয়, পুলিশের বিশেষ করে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটকে (সিটিটিসি) সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, বৈশ্বিক প্রেক্ষাপট ও গোয়েন্দা তথ্য পর্যালোচনায় জানা গেছে, আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক ঘটনাপ্রবাহ বিশ্লেষণ করে দেখা যায় সাধারণত বড় ধরনের হামলার মাধ্যমে ‘বেঙ্গল উলায়াত’ ঘোষণা করা হয়। তারই আলোকে এ দেশের জঙ্গি নব্য জেএমবির সদস্যরা জঙ্গি হামলাসহ যেকোনো ধরনের নাশকতা পরিচালনা করতে পারে। জঙ্গিরা পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের স্থাপনা, যানবাহন, বিমানবন্দর, তিন দেশের দূতাবাস, মসজিদ, মন্দির, গির্জা এমনকি ব্যক্তি বিশেষের ওপর এই হামলা চালাতে পারে।

চিঠিতে সম্ভাব্য দিন-তারিখ উল্লেখ না থাকলেও, হামলার সময় সকাল ৬-৭টা অথবা সন্ধ্যা ৭-১০টায় হতে পারে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

গোয়েন্দা তথ্যে আশঙ্কা করা হয়, হামলাকারীদের বয়স ১৪ থেকে ১৫ বছর হতে পারে। মুখে ক্লিন শেভড, তবে দাড়ি থাকতে পারে। একই সঙ্গে টি-শার্ট, প্যান্ট পরা থাকবে, সঙ্গে হ্যান্ড গ্লাভস, মাস্ক, কেডস, পেছনে ব্যাকপ্যাক থাকতে পারে। হামলার সময় হামলাকারী অস্ত্র ব্যবহার করতে পারে।

  

আপনার মন্তব্য লিখুন