আজ | মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০
Search

‘ময়ূর- ২’র মালিকসহ ৭ জনের নামে মামলা

চাহিদা নিউজ ডেস্ক | ৫:৫২ অপরাহ্ন, ১ জুলাই, ২০২০

chahida-news-1593604325.jpg

বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবির ঘটনায় ধাক্কা দেওয়া লঞ্চ ‘ময়ূর-২’ এর মালিক মোসাদ্দেক হানিফ ছোয়াদসহ সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। এ ছাড়া ওই লঞ্চের অজ্ঞাতনামা আরও অনেক কর্মচারীকে আসামি করা হয়েছে।

সোমবার রাতে নৌ পুলিশের পক্ষ থেকে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার বাদী সদরঘাট নৌ পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. শামছুল আলম।

তিনি বলেন, গতকাল রাতে লঞ্চডুবির ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলার আসামিরা হলেন-ময়ূর-২ লঞ্চের মালিক মোসাদ্দেক হানিফ ছোয়াদ, কর্মচারী মো. আবুল বাশার, মো.জাকির হোসেন, ইঞ্জিনচালক শিপন হাওলাদার, ড্রাইভার শাকিল হোসেন, সুকানি নাসির মৃধা ও হৃদয়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, বেপরোয়া লঞ্চ চালিয়ে মানুষ হত্যা ও ধাক্কা দিয়ে লঞ্চ দুর্ঘটনার জন্য দণ্ডবিধির ২৮০, ৩০৪ (ক), ৪৩৭ ও ৩৪ ধারায় মামলাটি দায়ের করা হয়। ঘটনাটি পূর্ব পরিকল্পিপত কিনা-সেটাও তদন্ত করা প্রয়োজন বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গতকাল সোমবার সোয়া ৯টার দিকে ঢাকার শ্যামবাজারের কাছে বুড়িগঙ্গা নদীতে এক লঞ্চের ধাক্কায় আরেকটি ছোট লঞ্চ ডুবে অন্তত ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এমএল মর্নিং বার্ড নামের ওই লঞ্চটি মুন্সীগঞ্জের কাঠপট্টি থেকে যাত্রী নিয়ে সদরঘাটের দিকে আসছিল।

তবে লঞ্চডুবির প্রায় ১৩ ঘণ্টা পর রাত ১০টার দিকে এক ব্যক্তিকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। নদীতে ভেসে ওঠার পর কোস্ট গার্ডের কর্মীরা তাকে তুলে নেন। উদ্ধার করার পর তিনি অচেতন হয়ে পড়েন। সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নেওয়া হলে তার জ্ঞান ফিরে আসে। তাকে রাজধানীর স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ক্যাজুয়ালটি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

  

আপনার মন্তব্য লিখুন