আজ | মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০১৯
Search

দাদির পাশেই থাকছেন নুসরাত

১২:১১ অপরাহ্ন, ১১ এপ্রিল, ২০১৯

chahida-news-1554963099.jpg

যৌন নিপীড়নের প্রতিবাদ করে নৃশংস ঘটনার শিকার হওয়া নুসরাত জাহান রাফির শেষ ঠিকানা দাদির পাশেই। বৃহস্পতিবার বিকালে জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক করস্থানে দাদির পাশেই সমাহিত করা হবে। গায়ে কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে দেয়ার ৫ দিন পর গতরাত সাড়ে ৯টার দিকে মারা যায় লাইফ সাপোর্টে থাকার নুসরাত।

এ ব্যাপারে নুসরাতের চাচা নুরুল হুদা জানান, পারিবারিক সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বৃহস্পতিবার বাদ আসর সোনাগাজী সাবের পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে তার জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। জানাজা শেষে দাদির কবরের পাশে তাকে সমাহিত করা হবে। এর আগে ঢাকা মেডিকেল কলেজে লাশের পোস্টমর্টেম শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। সেখান থেকে নুসরাতকে নিয়ে বাড়ির পথে রওনা দেবে তার পরিবারের সদস্যরা।

উল্লেখ্য, গত ৬ই এপ্রিল সকাল ৯টার দিকে আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত আরবি প্রথম পত্র পরীক্ষা দিতে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে যান।

এরপর কৌশলে তাকে পাশের ভবনের ছাদে ডেকে নেয়া হয়। ওই সময় বোরকা পরিহিত ৪-৫ জন তার শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে তার শরীরের ৮৫ শতাংশ পুড়ে যায়। শিক্ষার্থীর পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করেন, পরীক্ষার জন্য নির্ধারিত কক্ষ থেকে নুসরাতকে ছাদে ডেকে নিয়ে কয়েকজন বোরকা পড়া নারী পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যার চেষ্টা করে। মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা সিরাজ উদ দৌলার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগে দায়ের করা মামলা তুলে না নেয়ায় এ ঘটনা ঘটেছে। 

  

আপনার মন্তব্য লিখুন