আজ | মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০১৯
Search

কে এই সুলতান?

১২:১৬ অপরাহ্ন, ৮ এপ্রিল, ২০১৯

chahida-news-1554704169.jpg

বোর্নিও দ্বীপের ছোট্ট দেশ ব্রুনাই ৪ এপ্রিল ইসলামী শরীয়া আইন চালু করেছে। ব্রুনাইয়ের সুলতান হাসান আল বলকিয়া বলেন, সবাই আমাদের এ সিদ্ধান্তে একমত হবেন, সেটা আমরা মনে করি না। তবে অন্য দেশকে আমরা যেভাবে সম্মান করি, তারাও সেভাবে আমাদের দেখবেন বলেন আশা করছি।

দেশটিতে প্রথম শরিয়াহ আইন চালু করা হয়েছিল ২০১৪ সালে। ১৯৬১ সালের ১৫ বছর বয়সে ব্রুনাইয়ের সিংহাসনের উত্তরসূরি হন সুলতান বলকিয়া।

পরে ১৯৬৭ সালে সুলতান বলকিয়া যখন ব্রুনাইয়ের ২৯তম সুলতান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন, তখন দেশটিতে ব্রিটিশ শাসন চলছিল। ১৯৮৪ সালে দেশটি স্বাধীন হওয়ার পরেও সিংহাসনে তিনিই বহাল আছেন।

তিনি ব্রিটেনের সামরিক একাডেমি ও মালয়েশিয়ায় পড়াশুনা করেছেন। এখন পর্যন্ত তিনি তিনটি বিয়ে করেন। ১৯৬৫ সালে পেনগিরান আনাক সালেহাকে বিয়ে করেন তিনি। যে সংসার এখনো টিকে আছে।

তবে ১৯৮২ সালে ইস্তারি মারিয়ামকে বিয়ে করলে ২০০৩ সালে তা ভেঙে যায়। পরে ২০০৫ সালে আজরিনাজ মাজহার হাকিমকে বিয়ে করেছিলেন, যা পাঁচ বছর টিকেছিল।

বিশ্বে দীর্ঘসময় সিংহাসনের থাকা শাসকদের মধ্যে ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের পরেই তিনি। ফোর্বসের হিসাবে, ব্রুনাইয়ের এই সুলতান দুই হাজার কোটি ডলার সম্পদের মালিক।

বিশ্বের সবচেয়ে বেশি রোলস রয়েস গাড়িও রয়েছে তার সংগ্রহে। যা পাঁচ শতাধিক হবে। তার সংগ্রহে থাকা গাড়ির মূল্য হবে চারশ কোটি ডলার।

ব্রুনাই বিনিয়োগ সংস্থারও স্বত্বাধিকারী এই ৭২ বছর বয়সী সুলতান। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নয়টি বিলাসবহুল হোটেল রয়েছে তার।

তার মধ্যে বেভারলি হিলস হোটেল, লস অ্যাঞ্জেলেসে হোটেল বেল-এয়ার, লন্ডনে ডোরচেস্টার ও প্যারিসে হোটেল প্লাজা অ্যাথেনি অন্যতম।

তিনি যখন সালতানাতের ভার গ্রহণ করেন, তখন বিশ্বের সবচেয়ে মাথাপিছু আয়ের দেশ ছিল ব্রুনাই। দেশটির নাগরিকদের তখন গড়ে ৪৮ হাজার ৬৫০ ডলার আয় ছিল।

কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েথারহেড এস্ট এশীয় ইন্সটিটিউটের গবেষক এ্যামি ফ্রিডম্যান বলেন, ব্রুনাই খুবই ধর্মপ্রাণ দেশ। বহু আগ থেকেই দেশটির নাগরিকরা ধর্মীয় বিধিনিষেধ মেনে চলে আসছেন।

গত কয়েক দশক থেকেই বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিদের একজন হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে সুলতানকে। তার রোলস রয়েসের একটি অবয়বে স্বর্ণের প্রলেপ দেয়া রয়েছে।

এছাড়া তার বিশাল খামারসহ পোলো কমপ্লেক্স রয়েছে। এছাড়া এক হাজার ৭৮৮ কক্ষের একটি প্রাসাদ নির্মাণ করেছেন তিনি।

ইস্তানা নুরুল ইমান নামের এই প্রাসাদ বিশ্বের সবচেয়ে বড় আসাবিক হিসেবে গিনেস বুক অব রেকর্ডে নাম লিখিয়েছে।

তার পঞ্চাশতম জন্মদিনে মার্কিন পপ তারকা মাইকেল জ্যাকসনের কনসার্টের আয়োজন করা হয়েছিল।

  

আপনার মন্তব্য লিখুন