আজ সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭ |
Search

প্রচ্ছদ খেলা মেসির বড় ছেলে ‘বিস্ময়কর’, ছোটটা ‘ভয়ঙ্কর’!

৬১  বার পড়া হয়েছে

মেসির বড় ছেলে ‘বিস্ময়কর’, ছোটটা ‘ভয়ঙ্কর’!

৯:৪১ অপরাহ্ন, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৭

  

chahida-news-1512661274.jpg

বয়স মাত্রই ৫। এরই মধ্যে নিজের ফুটবল প্রতিভার স্বাক্ষর রাখতে শুরু করেছেন থিয়াগো। তার সেই ফুটবল প্রতিভার খবর বাইরে দুনিয়া জানুক না জানুক, বাবা লিওনেল মেসি মুগ্ধ। ছেলের ফুটবল দক্ষতা, নৈপূণ্যে ৫ বারের ফিফা ব্যালন ডি’অর জয়ী মেসি এতোটাই মুগ্ধ যে, ৫ বছর বয়সী থিয়াগোকে তিনি আখ্যায়িত করলেন ‘বিস্ময়কর প্রতিভা’ হিসেবে! আচরণেও শান্ত-শিষ্ট। থিয়াগোর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেও ২ বছর বয়সী ছোট ছেলে মাতেও-কে দিলেন ঠিক এর উল্টো সার্টিফিকেট। বললেন, মাতেও ঠিক থিয়াগোর বিপরীত, খুবই ভয়ঙ্কর!

.

সম্প্রতি টিওয়াইসি স্পোর্টসকে দীর্ঘ এক সাক্ষাৎকার দিয়েছেন বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। সাক্ষাৎকারে নিজের বয়স, ক্লান্তি, বিশ্রাম, ক্লাব বার্সেলোনার পারফরম্যান্স, ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপসহ অনেক বিষয় নিয়েই কথা বলেছেন মেসি। আলোচনায় উঠে আসে তার দুই ছেলে থিয়াগো এবং মাতেও প্রসঙ্গও।

বিশ্বসেরা ফুটবলারের ছেলে বিশ্বসেরা হবে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে ৫ বছর বয়সী বড় ছেলের উচ্ছ্বসিত প্রশংসাই করেছেন। কিন্তু ছোট ছেলে মাতেওএর কথা বলতেই পাল্টে যায় মেসির ভাষা। প্রশংসার পরিবর্তে তিনি যেন সমালোচনায় মেতে উঠেন! কঠিন ভাষায় বলেন, তার ছোট ছেলেটা খুবই চঞ্চল। একই সঙ্গে হিংস্রও। সুযোগ পেলেই বাবা মেসি এবং মা আন্তোনেল্লা রোকুজ্জোকে খামচে ধরে। কিল-ঘুষি নিয়মিত ব্যাপারই। এমনকি অপমান-অপদস্তও করে!

‘তারা দুজন আসলে সম্পূর্ণ আলাদা। থিয়াগো বিস্ময়কর, সত্যিই খুব ভালো। আর অন্যটা তার ঠিক বিপরীত। একেবারে নেকড়ের বাচ্চা।’-হাসতে হাসতে বলেছেন ৩০ বছর বয়সী মেসি।

শুধু স্বভাব-আচরণে নয়, মাতেও-এর ফুটবল প্রতিভা নিয়েও সন্দিহান বাবা মেসি! থিয়াগো প্রায়ই বাবার সঙ্গে বল নিয়ে কারিকুরি করেন। বাদ থাকেন না মাতেওও।

দুই ছেলের ফুটবল প্রতিভা-দক্ষতার বর্ণনা করতে গিয়ে মেসি বলেন, ‘মাতেও ভয়ঙ্কর। সত্যিই দুজনকে বিপরীত স্বভাবের হতে দেখাটা দারুণ। মাতেও ফুটবলটা সেভাবে খেলতে পারে না। তবে সে ডান পায়ের খেলোয়াড়। সে খুব বেশি সহযোগিতা চায়। হ্যাঁ, বলে শট নিতে পারে, তবে সে খুবই ছোট।’

থিয়াগোর পছন্দ-অপছন্দের বিষয়ে বলেন, ‘থিয়াগো গাড়ি, মটরসাইকেল চালাতে পছন্দ করে। ফুটবল খেলতেও পছন্দ করে। তবে অল্প সময় খেললেও সে ক্লান্ত হয়ে যায়।’

শুধু মেসির দুই ছেলেই নয়। প্রায় সময়ই থিয়াগোর খেলার সঙ্গী হন লুইস সুয়ারেজের ছেলে বেনিয়া। সুয়ারেজের ছেলের বয়সও থিয়াগোর সমানই, ৫। মেসি জানিয়েছেন থিয়াগো এবং বেনিয়া খুব ভালো বন্ধুও, ‘থিয়াগো এবং তার বন্ধু বেনিয়া একই বয়সের। দুজনেই ফুটবল পাগল। সেও (বেনিয়া) খেলতে ভালোবাসে। ফুটবল খেলা দেখতে ভালোবাসে। সে সব খেলোয়াড়দেই নাম জানে।’

  

Post Your Comment