আজ শুক্রবার, ২০ জুলাই ২০১৮ |
Search

প্রচ্ছদ সংবাদ পাহাড়ে বৈসাবি উৎসব

৭৫  বার পড়া হয়েছে

পাহাড়ে বৈসাবি উৎসব

চাহিদা নিউজ ডেস্ক | ১২:৪০ অপরাহ্ন, ১২ এপ্রিল, ২০১৮

  

chahida-news-1523515243.jpg

চট্টগ্রামের তিন পার্বত্য জেলায় চাকমা, মারমা ও ত্রিপুরাদের ঐতিহ্যবাহী সামাজিক ও ধর্মীয় উৎসব বৈসাবি আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে। ত্রিপুরাদের বৈসু, মারমাদের সাংগ্রাই ও চাকমাদের বিঝু উৎসবের নামের আদ্যক্ষর নিয়েই বৈসাবি।

বুধবার সকালে খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে শান্তির পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে উৎসবের উদ্বোধন করেন পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. নুরুল আমিন। এ সময় খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, খাগড়াছড়ি রিজিয়নের অধিনায়ক ব্রি. জেনারেল আব্দুল মোতালেব সাজ্জাদ মাহমুদসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আজ বৃহস্পতিবার ভোরে স্থানীয় নদী, খাল ও ছড়ায় ফুল ভাসানোর মধ্য দিয়ে চাকমা সম্প্রদায় শুরু করবে বিজু উৎসব। এ ছাড়া বাংলা নববর্ষের প্রথম দিন ত্রিপুরা জাতিগোষ্ঠী বৈসু উৎসব পালন করবে। মারমা সম্প্রদায় বাংলা নববর্ষের দ্বিতীয় দিনে সাংগ্রাই উৎসব পালন করে থাকে।

এদিকে বান্দরবানে ম্রো সম্প্রদায়ের চাংক্রান উৎসবের মধ্য দিয়ে শুরু হলো পাহাড়ে বর্ষবরণ অনুষ্ঠান। এ উৎসবের মাধ্যমে ম্রো সম্প্রদায় নতুন বছরকে বরণ ও পুরনো বছরকে বিদায় জানায়।

গত ৯ এপ্রিল রাঙামাটি বিজু, সাংগ্রাই, বৈসু, বিষু, বিহু চাংক্রান উদযাপন কমিটি পৌরসভা প্রাঙ্গণ থেকে চার দিনের কর্মসূচির উদ্বোধন করেছে।

এর আগে গত ৫ এপ্রিল তিন দিনের বিজু-সাংগ্রাই-বৈসুক-বিষু মেলার যৌথ আয়োজন করে রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট ও রাঙামাটি জেলা পরিষদ। আগামী ১৮ এপ্রিল রাঙামাটির আসাম বস্তিতে মারমা সম্প্রদায়ের জল উৎসবের মধ্য দিয়ে বর্ণিল এ আয়োজনের সমাপ্তি ঘটবে। মারমা সংস্কৃতি সংস্থার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

  

Post Your Comment