আজ সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭ |
Search

প্রচ্ছদ বিনোদন ‘সেক্সে যে আনন্দ আছে, সকলে সেটাই ভুলে যান’

৩৭২  বার পড়া হয়েছে

‘সেক্সে যে আনন্দ আছে, সকলে সেটাই ভুলে যান’

চাহিদা বিনোদন ডেস্ক | ৫:২৫ অপরাহ্ন, ১৭ নভেম্বর, ২০১৭

  

chahida-news-1510917903.jpg
‘তুমহারি সুলু’ ছবির একটি দৃশ্যে বিদ্যা।

ছ’বছর আগে ‘ডার্টি পিকচার’ ছবিতে দেশের ‘সেক্স সাইরেন’ সিল্ক স্মিতার চরিত্রে অভিনয় করে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন। তাঁর মুখেই জনপ্রিয় হয়েছিল ‘এন্টারটেনমেন্ট এন্টারটেনমেন্ট এন্টারটেনমেন্ট’ ডায়ালগ। সিল্কের চরিত্রে অভিনয় করে প্রশ্ন তুলেছিলেন, ‘সেক্স নিয়ে ছবি হয়। সেই ছবি বেচে রোজগার হয়। লোকে দেখে, অথচ সেক্সকে আপন করতে যত ভয়...।’ সেই বিদ্যা বালনের মুখেই ফের এক বার যৌনতা নিয়ে প্রশ্ন।

এ বার তাঁর বক্তব্য অবশ্য কোনও ফিল্মের চরিত্র হয়ে নয়, বরং বাস্তবে যৌনতা নিয়ে দেশের ধ্যানধারণা প্রসঙ্গে মন্তব্য করেছেন বিদ্যা।

আজ শুক্রবার মুক্তি পাচ্ছে বিদ্যা বালনের ছবি ‘তুমহারি সুলু’। ছবির প্রচারে গিয়েই বিদ্যার মুখে উঠে এসেছে ‘সেক্স’ প্রসঙ্গ। তিনি বলেছেন, ‘‘এটা খুবই হাস্যকর যে বিশ্বের অন্যতম জনবহুল দেশ হয়েও, সর্বসমক্ষে আমরা সেক্স নিয়ে কথা বলতে পারি না। এখানে সেক্স বিষয়টাকে খুব নিচু করে দেখানো হয়। কারণ এ দেশের সংস্কৃতিতে যৌনতা মানেই বিয়ে।’’

‘তুমহারি সুলু’ ছবিতে এক জন আরজে (রেডিও জকি)-র ভূমিকায় অভিনয় করেছেন বিদ্যা। সাধারণ এক গৃহবধূ মাঝরাতে রেডিও জকি হয়ে শো সঞ্চালনা করেন। সেই সময় তাঁর কণ্ঠে শুধুই আবেদন। কাজের সুবাদে রাতজাগা প্রেমিক-চৌকিদার-পাগলদের জন্য তাঁকে বলতে হয়, ‘‘সেক্স আর পাঁচটা কাজের মতোই একটা কাজ। যেমন আমরা বলি চলো ওয়াশিং মেশিন চালাই। তেমনই বলা উচিত, চলো সেক্স করি।’’

নতুন ছবি প্রসঙ্গে বলতে গিয়েই যৌনতা নিয়ে বিদ্যার আরও মন্তব্য, ‘‘যৌনতার মধ্যে যে আনন্দ রয়েছে, সেটাই এখানে ভুলে যায় সবাই।আমাদের এ নিয়ে নতুন করে ভাববার দিন এসেছে।... সেক্স একটা অনুভূতি, কোনও ট্যাবু নয়।’’

৩৮ বছরের অভিনেত্রী আপাতত ব্যস্ত নতুন ছবির প্রচার নিয়ে। ছবির পরিচালক সুরেশ ত্রিবেণী। চলতি বছর সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ‘বেগমজান’ ছবিতে শেষ অভিনয় করেছিলেন অভিনেত্রী। যদিও সেই ছবি বক্স অফিসে একেবারেই চলেনি। এ বার পালা ‘তুমহারি সুলু’র।

  

Post Your Comment