আজ রবিবার, ২৭ মে ২০১৮ |
Search

প্রচ্ছদ দেশ শরীরে রক্ত দেখে ‘খুনি’ আটক

৪৭  বার পড়া হয়েছে

শরীরে রক্ত দেখে ‘খুনি’ আটক

চাহিদা নিউজ ডেস্ক | ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন, ৩০ এপ্রিল, ২০১৮

  

chahida-news-1525067726.jpg

মাদারীপুর সদর উপজেলায় এক ইজিবাইক চালককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে চারজনকে আটক করে জনতা গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের দিয়েছে।

রোববার গভীর রাতে উপজেলার কুনিয়া ইউনিয়নের আশাপাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন মাদারীপুর সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আবু নাঈম।

নিহত ইজিবাইক চালকের নাম সুলতান বেপারী। তিনি সদর উপজেলার পেয়ারপুর ইউনিয়নের গাছবাড়িয়া এলাকার জহিরুল বেপারীর ছেলে।

আটকরা হলেন—রাজৈর উপজেলার বাজিতপুরের জনি বেপারী (২২), শরিফুল বেপারী (২০), শাওন জমাদ্দার (১৫) ও সাব্বির হাওলাদার (২১)।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, ধারণা করা হচ্ছে, ওই চারজন চালককে হত্যার পর লাশটি রাস্তার পাশে ফেলে দিয়ে ইজিবাইক ছিনতাই করে পালাচ্ছিল। পথে আশাপাট এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি ইজিবাইকের সঙ্গে এর সংঘর্ষ হয়। ওই ইজিবাইকেও কয়েকজন যুবক বসে ছিল।

এ সময় ‘ছিনতাইকারীদের’ শরীরে রক্তের দাগ দেখে যুবকদের সন্দেহ হয় এবং তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। একপর্যায়ে অবস্থা বেগতিক দেখে চার ‘ছিনতাইকারীর’ দুজন কৌশলে পালিয়ে যায়।

বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়ে গেলে বাড়িঘর থেকে লোকজন বেরিয়ে আসতে শুরু করেন। কয়েকশ লোক জড়ো হয়ে যান। তখন আশাপাট গ্রামের শেষপ্রান্ত থেকে পালিয়ে যাওয়া দুই ‘ছিনতাইকারীকে’ আটক করা হয়।

পরে চারজন ইজিবাইক চালককে হত্যার কথা স্বীকার করে এবং লাশ দেখিয়ে দেয় বলে জানান পরিদর্শক মো. আবু নাঈম। তিনি আরো জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। চারজনকে হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হবে। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

  

Post Your Comment